টেলিযোগাযোগ অধিদপ্তর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১১ জুন ২০১৯

মহাপরিচালক মহোদয়ের জীবন বৃত্তান্ত

মহাপরিচালক

জনাব মোঃ মহসিনুল আলম

জনাব মোঃ মহসিনুল আলম ০৩ জুন ২০১৯ তারিখে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অধীন টেলিযোগাযোগ অধিদপ্তরে মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। বিগত ৩১ বছর যাবৎ তিনি গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের টেলিকম ও প্রশাসন ক্যাডারের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন। মন্ত্রণালয় পর্যায়ে অতিরিক্ত সচিব, যুগ্মসচিব ও উপসচিব এবং টেলিকম ক্যাডারে বিভাগীয় প্রকৌশলী, উপবিভাগীয় প্রকৌশলী এবং সহকারী বিভাগীয় প্রকৌশলী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

তিনি বিসিএস ১৯৮৫-এর ব্যাচ এর কর্মকর্তা হিসেবে ১৯৮৮ সালে বিসিএস (টেলিকম) ক্যাডারে যোগদানের মাধ্যমে তিনি কর্মজীবন শুরু করেন। ২০০৬ সালে উপসচিব পদে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে যোগদান করেন এবং ২০০৯ সাল পর্যন্ত উক্ত মন্ত্রণালয়ে কর্মরত ছিলেন। পরবর্তীতে ২০০৯-২০১০ সালে তিনি ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগে উপসচিব হিসাবে কর্মরত থাকাকালীন সময়ে গুরুত্বপূর্ণ টেলিকম পলিসি ও অন্যান্য বিষয়াদি নিয়ে কাজ করেন। এরপর তিনি ২০১১-২০১৫ সাল পর্যন্ত বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের অধীনে প্রকল্প পরিচালক হিসাবে পাবনা টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের আপগ্রেডেশন প্রকল্পে নিয়োজিত ছিলেন এবং সুষ্ঠুভাবে প্রকল্পটি সম্পন্ন করেন এবং সেসময়ে তিনি যুগ্মসচিব হিসাবে পদোন্নতি লাভ করেন। ২০১৫-২০১৮ সালে তিনি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগে সিস্টেম ম্যানেজার (যুগ্মসচিব) হিসাবে কর্মরত থাকাকালীন সময়ে আইসিটি অধিদপ্তরের বিভিন্ন প্রকল্প প্রণয়নের মূল দায়িত্ব পালন করেন। পরবর্তীতে তিনি অতিরিক্ত সচিব হিসাবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরে বিভিন্ন স্কোপসহ একটি G2G প্রকল্প প্রণয়ন এবং BoQ তৈরীর কাজ করেন।

তিনি পাবনা জেলার বেড়া উপজেলায় সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি এক কন্যা এবং এক পুত্র সন্তানের জনক। ১৯৮২ সালে রাজশাহী ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ (বর্তমানে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি  বিশ্ববিদ্যালয়) হতে তিনি স্নাতক এবং সাউথইষ্ট ইউনিভার্সিটি থেকে ২০০৭ সালে এমবিএ ডিগ্রি লাভ করেন।

চাকুরীক্ষেত্রে সরকারি দায়িত্ব পালনের অংশ হিসেবে তিনি মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, সিংগাপুর, চীন, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, ভারত, মেক্সিকো, শ্রীলংকা, রাশিয়াসহ  বিভিন্ন দেশ ভ্রমণ করেছেন।

 



Share with :

Facebook Facebook